Online Shopping

Call at 9am to 5pm +8801752078099

Online Shopping

Call at 9am to 5pm +8801752078099

Month: May 2018

Newborn baby clothes in bangladesh | Walibazar.com

Newborn baby clothes in bangladesh
Newborn baby clothes in bangladesh

Welcome to Newborn baby clothes in bangladesh Article:

If you are looking for clothing items for baby and kid’s(Newborn baby clothes in bangladesh), then you have certainly come to the right place. All kinds of baby products for your newborn baby are available in our store to welcome your precious new baby. Our collection is assured to fit them and start their very first adventure. We provide a broad range of clothing within your budget.

It is a continuous dilemma for the parents like you to buy baby clothes for your newborn for their first use. As it is always difficult to buy clothes for a baby compared to an adult. We are here to make your life a lot easier here in Bangladesh. You may easily shop the best clothes that will fit your baby and also be comfortable for the baby in different seasons (Newborn baby clothes in bangladesh). We care for your loved one. We have the broad and diverse range of clothes so that your baby gets desired care in different seasons.

You may also be in need to gift a baby dress to your closed one. We have varieties of lucrative dress collection which will meet your best choice.

In our store, we are engaged in finding the latest and finest garments for your child. Also, shop newborn baby clothes from our store in exclusive prizes. We have both established brands as well as less established brands from well-known designers. The clothes will definitely be adorable for you and your child. We place high demands on our suppliers to assure your money being well spent.

As a parent of a newborn baby, you may are very conscious about your baby’s health. Here you will find ideal clothes that will bring comfort to your newborn baby every day even while sleeping. Your baby will be enjoying cuddling, crawling and playing wearing outfits from our store. Elastic waists make moms life easier to dress up her baby. The upper and lower wear are of a perfect matching. Why not match your own dress color or prints with your baby. How about a party dress for your little star. Check out our “Baby party dress in Bangladesh” category.

Quality fabrics, extra soft, adorable design and attention to detail all come together to bring out the best products that all moms and dads would love. Cute hats, socks and shoes are going to make your experience more awesome with us. Baby-friendly design clothing from top to toe will help you for easy wardrobe changes. WaliBazar makes dressing babies easy. We are committed to standing as number one brand of baby clothing in Bangladesh. We provide comfort to your real life experience.

online stationery shop in bangladesh | Walibaza.com

online stationery shop in bangladesh
online stationery shop in bangladesh

Best Online Stationery Shop in Bangladesh

Are you trying to shop your stationary item at online? Having a lots of search but couldn’t found your desire product yet? Are you become frustrated thinking that online shopping is a bullshit idea? If the all answer is yes then definitely here is the solution for you. We are the biggest online stationary shop in Bangladesh. After pay a visit to our site you become a fan of this site. Our site is very user friendly and also very easy to place an order at our site.  Here you can find all kind of stationary products item at a reasonable price with your desire quantity. There are lots of online stationary shops in Bangladesh but among all of them we are the best.

Here are some tips on online stationary shopping in Bangladesh

You will save lots of cash once you online stationary shopping in Bangladesh. Not solely that, you’ll save time and energy also. There you ought to carry significant boxes from the shop and to your workplace. Below are the guidelines that may create your online shopping  for online stationary shopping better.

Create an inventory   

It is suggested that you must first create a searching list to create the method easier. This can be conjointly some way to make sure that you just get all you wish once resupplying provides for your office or giant company. You ought to additionally indicate details like printer model or paper size. After you have an inventory, you’ll fill your cart in exactly some of the minutes.

Compare products

When you are online, you’re ready to compare products. This permits you to form a wise decision once you do online stationery shopping. You’ll verify the material employed in the office provides and whether or not they are eco-friendly or not. You’ll conjointly compare costs to work out the most effective price for your cash.

Keep a Record of Orders

Shipping delays do happen, and that’s why it’s vital to stay track of your offer usage. That means you’ll avoid being caught without ink or stationery whereas awaiting the order to arrive. Over time, you’ll be ready to verify a pattern with regards to produce usage and might arrange once to position successive order. That approach you’ll keep track of the frequency of your purchases.

It is vital that you just fill again your online stationery shopping in Bangladesh before they run out. You need to not wait once things are running low. It’s higher to extra service before an item is nearly gone. That method you’ll avoid shopping for one thing out of impulse. It additionally provides you the prospect to require advantage of discounts or sales.

 

Buy Quality Not amount

It is vital to decide on quality online stationery shopping. You want to not accept cheap ones so as to chop corners. At our website, you’ll make sure that you just get top quality products at cheap costs. You’ll be able to trust the online shop to deliver the most effective that your company can afford.

 

 

Little Known Ways to Bangladeshi Foods

bangladeshi foods

About Bangladeshi Foods

The spectacular combination of our age recent ancient values and a various range of utterly homogenized spices offer People’s Republic of Bangladesh cuisines a singular taste that folks from all around the world don’t hesitate to come back here once more. Our foods and spices are thus nice that currently these rule the full world. Several of you would possibly have already tasted those in abroad in several restaurants that offer Bangladeshi foods.

blanksorisha ilish

Most of the Bangladeshi foods are supported rice. An abundance of fishes in rivers and ponds and our love towards completely different sorts of fishes in several styles of dishes build the byword “Fish and rice make a Bengali” additional substantive . Especially Shorshe Ilish, a dish of preserved hilsha with mustard-seed paste, is taken into account because of the most important a part of our Bangladeshi preparation. With the exception of that, we have a tendency to even have curry created out of freshly picked vegetables, comletely different forms of meat, lentils soup, etc in our dishes.

bangladesh food recipes

Well, with the exception of the regular dishes mentioned antecedently, some dishes are specially designed to boost our celebration and festivals. Although pitha (cake) is fashionable for celebrating a particular season, however, it’s a much more reason to be celebrated that pitha is usually ready and cherished in any Bangladeshi board everywhere the year. Most pithas are sweet however that doesn’t stop us from creating it spicy. There are some pithas that are created with meat and alternative spices. The chief ingredients of pitha are: sugarcane, date juice, rice, flour, milk etc. Bhapa, pooli, patishapta, nakshipitha etc are common however celebrated in any Bangladeshi room.

 

The deeper you stray around the alleys of any Bangladeshi city, the additional exotic your preparation expertise can become. Foods found in our streets and restaurants are as ancient because the foods grilled in our home. Iftar at a recent capital of Bangladesh, jhalmuri (puffed rice with spices), dal puri, smokin’ hot Kebabs, etc. are for sure never to be lost.

 

You will be surprised to understand that after you are visiting every a part of the People’s Republic of Bangladesh, there exist many alternative native foods that are illustrious for his or her individual characteristics. Some select spice or some select sweets. The style is clearly completely different than the thought ones however at the bottom it solely depicts a singular theme; it’s Bangladeshi food.

 

The staples of Sylheti folks are principally rice and fish. Their selection and technique of cookery are clearly completely different to non-Sylhetis. ancient foods include bitter dishes, like tengha boiled with vegetables, together with amra, defal, olives, dewwaa, amshi, mango choti, kul, hatkhora (or shatkora), ada zamir, and the other sour lemon-like tasty vegetable and additionally many varieties of meat dishes, together with chicken. In Chitagong Mezban feasts are widespread throughout the world. Seafood and food are quite current in these areas. Dried fish is a lot of offered in this region than in different components of the country.

 

Apart from that, the foremost southern a part of this region is especially influenced by the Arakan cooking of Asian country. Dried fish, bamboo shoots, sea fish, and lots of a lot of are the specialties. They use a lot of spicy flavors and coconuts in their food preparations. The capital Dhaka and its territory region compose the central region, wherever water fish are a lot of popular. Because of completely different ruling periods, the preparation of this region is versatile. The old Dhaka space is known for the nawab Awadhi cooking. In old Dhaka, kababs, naans, bakarkhani, Kachchi biriyani, haleem, mutton bhuna khichuri, Roust and especially mutton tehari are samples of dishes that became fashionable in different components of the country.

 

Rajshahi mangoes are thought of to be the most effective within the country. Sweet dishes are common. The Northern elements of the country is additionally famed for growing pineapple, guava, watermelon, white or sweet melon, green bell apple, wood apple, tropic grape, jujube, pear, litchi etc. Khulna and Jessore areas and are terribly near the West Bengal of India. The cooking of those areas is known as authentic Bengali recipes. Mug dal with hilsha fish head, dalna, chachchari, luchi-payesh, hilsha with mustard are extremely popular during this region like neighboring West Bengal in India. Coconut milk is incredibly popular during this region. Barisal and Khulna: A large range of sweet water fishes are out there during this region that is extremely known everywhere the country.

 

The following may be a list of characteristic Bangladeshi recipe styles. Every entry may be a category of recipes, manufacturing completely different dishes counting on the selection of ingredients. There are tastes that the Bangladeshi palate caters to. These include:

Achar: Assortment of pickled fruit, vegetables or spices. Typically flavored with mustard oil, mustard seeds, aniseeds, caraway seeds, and asafoetida or hing.

Bawra: something that has been mashed mixed with thick batter and so fashioned into a rough round form and deep cooked, typically in soybean or mustard oil. Typically it’s served with rice as a starter or served with puffed rice crisps or as a single snack.

Bhapa: Fish or vegetables steamed with spices.

Chap: Bengali-style croquettes sometimes coated with crushed biscuits or breadcrumbs.

Kalia: a really wealthy preparation of fish or meat employing a heap of oil or ghee with a spicy sauce sometimes supported ground ginger and fresh shallots glued or cooked together with a tempering of gorom moshla.

Kofta: Ground meat croquettes certain along with spices or eggs, served alone or in savory gravy.

Korma: It involves egg, fish or meat cooked in a delicate yogurt-based sauce with ghee, and sometimes flavored paste is additional. People of southern Bangladesh add coconut milk to several of their dishes and korma is not an exception.

Paturi: typically, oily fish is sliced equally and wrapped in an exceedingly banana leaf, when the fish has been basted with freshly glued mustard with a touch of mustard oil, chili, turmeric, and salt.bangladeshi food

Posto: something (especially potato, aubergine) baked with poppy seed paste because of the main flavoring agent. Usually, poppy seed paste with some mustard oil is consumed mixed with rice all by itself as a light beginner during a meal.

Shak: green leafy vegetables, like spinach and cruciferous vegetable, are sliced and cooked till they wilt during a bit of oil and tempering of nigella seeds.

Torkari: A general term usually utilized in Bengali, a similar manner ‘curry’ is used in English. The word-initial meant raw garden vegetables. From this, it absolutely was a natural extension to mean baked vegetables or maybe fish and vegetables cooked along.

 

Desi fish | Amazing Bangladeshi Fish

Amazing Desi Fish

Bangladesh is a land of rivers and famous for desi fish . Our rivers abound with fish. There are concerning 32,000 species of fishes worldwide and nearly 400th of the species board fresh water. In Bangladesh, there are 401 species of marine fishes and 251 species of inland fishes (in freshwaters and salt waters).

 

desi fish hilsa (Ilish):

The most vital (culturally and economically) one is hilsa (Ilish), Tenualosa ilisha, an anadromous fish that migrates down the ocean to the rivers to spawn. The immature young ones, domestically called jatka fully grown within the rivers and its tributaries, descend to the ocean for feeding, and on maturity come back to freshwater for breeding and to complete the life cycle.

The migrating adult fishes are extensively exploited throughout may to October; the young ones that are Jatka are captured throughout Feb to may within the rivers.Bangladesh is famous for this delicious fish (desi fish). It’s our national fish. It’s known as the king of fish too. In Bangladesh, hilsa fish is especially caught within the Padma (lower Ganges), Meghna (lower Brahmaputra), and Jamuna rivers. Over 100 percent of the country’s total fish production comes from hilsa fish. Hlish is an oily fish made of omega 3 fatty acids. Recent experiments have shown its useful effects in decreasing cholesterol level in rats and insulin level.

desi fish Rui (Labeo rohita):

Rui (Labeo rohita) may be a fish of the carp fish family, found normally in rivers and freshwater lakes in and around South Asia and South-East Asia. It’s a non-oily/white fish. Throughout the first stages of its lifecycle, it fares primarily creature, however, because it grows, it fares a lot of and a lot of flora, and as a juvenile or adult is a carpophagous column feeder, intake primarily flora and submerged vegetation. It’s changed, skinny hair-like gill rakers, suggesting that it feeds by sieving the water. This fish is thought domestically as ‘the king of fishes’. Found in fresh bodies, seldom in briny water. This fish may be a bottom feeder fish. Prey on each natural and supplementary feeds. Naturally breeds in flowing water bodies, particularly in rivers, and floodplains throughout the season.

Catla is that the sole member of the genus Gibelion, of the carp fish family. It’s a fish with an oversized sticking out jawbone. It’s normally found in rivers and fresh lakes in Bangladesh. Body short and deep, somewhat laterally compressed, its depth quite head length; head terribly giant, its depth exceptional half the top length; body with prominently giant cycloid scales, head barren of scales; snout flat out rounded; eyes giant and visual from face of the head; mouth wide and upturned with outstanding sticking out lower jaw; higher lip absent, lower lip terribly thick; no barbels; jawbone with a movable articulation at symphysis, while not a outstanding process; gill rakers long and fine. It will weigh quite fifty pounds.

Mrigel, Common English: Mrigal carp, Scientific name: Cirrhinus cirrhosis may be a native to giant rivers within the Indian landmass. Inhabits are quick flowing streams and rivers. It will tolerate high levels of salinity. Feeds on being, however additionally graze on protoctist. Spawning happens in marginal areas of the water body with a depth of 50-100 cm over a sand or clay substrate. It will grow one meter long and weigh up to twenty-five weight unit. This is an awfully active fish with a massive strength.

Kalibaus, Scientific Name: Labeo calbasu is also a popular species happens throughout Bangladesh, India, Nepal, Myanmar, Pakistan, Siam and Southern China. Inhabits in rivers, rivers, lakes, beels, and ponds; in slow waters of rivers and it’s primarily a bottom feeder that feeds on plants, filamentlike protoctist, and diatoms. It will weigh up to 5-6 weight units. Terribly strong fish to convey an excellent fight.

Walking Machine Price In Bangladesh | Walibazar

Walking Machine Price In Bangladesh

Hello and welcome to our site. If you are looking for a walking machine at the best price in Bangladesh then surely it’s your favorite destination. Surely you have made a search to know the walking machine price I Bangladesh. We are offering you a walking machine in simply in your pocket budget (walking Machine Price In Bangladesh). Generally walking machine is known as a treadmill.  Here you can find different types of walking machine.

A home walking machine may be an excellent investment, supplying you with a lot of choices for exercise once you are out of your time, cannot get to the athletic facility, or cannot get outside. Employing a walking machine in a very athletic facility is one issue, however considering one for your home athletic facility is another matter. An honest walking machine is pricey and shopping for one does not essentially mean that you’re going to use it on a daily basis.

Before you choose whether or not to, however, a walking machine, think about these factors:walking machine

  • Your budget.
  • How a lot of areas you have got and whether or not you wish a folding walking machine.
  • How many of us can use it and the way typically.
  • How you will use it—running places a lot of stress on the machine than walking and needs an extended belt for an extended stride.
  • Extras like program choices, pulse rate monitor, etc.

Walking machine Motor horsepower

The horsepower delivered by the drive motor directly affects the standard of your walking machine and the way your workouts can feel.

Figuring out horsepower and motor specifications may be confusing. To make it simple, aim endless duty motor with a minimum of 1.5 power unit. If you propose on running on the walking machine of times, you will be comfortable selecting 2.5 to 3.0 power unit. You’ll conjointly want an additional powerful motor counting on your weight.

Minimum Specifications

Other things to seem for include:

  • Belt size: For running, the belt ought to be a minimum of 48 inches long and 16 inches wide.
  • Speed: If you propose on running, get a walking machine that goes up to 10 mph or higher.
  • Incline: Get a walking machine with an incline that goes up to ten percent or higher. If the walking machine features a decline feature, that’s conjointly valuable to offer an improved simulation of outside running conditions.
  • Cushioning: The running bed ought to absorb shock and also the belt should not move around with each foot-strike.
  • Stability: The walking machine should not shake after you run or walk thereon and also the frame ought to stay stable.
  • Control panel: It ought to be close by and easy to use.

 

Budget Folding Walking Machine

These models will have a shorter running belt, which can be adequate for walkers. They embody a show for speed, distance, time, and calories burned, still as a shelf with water-bottle holders. These models usually don’t embody a chest strap heart-rate monitor or heart-rate management programs.

Pros: If walking is your primary exercise, lower-priced models ought to satisfy.

Cons: Budget models are engineered from lighter materials tend to feel less stable, and their decks may well be too short for a runner’s stride.

Folding Walking Machine

Generally, these models can offer extra options to the budget folding models, together with additional exercise programs, together with heart-rate controlled setups. Some have a chest strap heart-rate monitor.

Pros: Sturdier construction makes these treadmills higher suited to occasional running.

Cons: The deck on several models should be too short for runners with an extended stride.

Non-Folding Walking Machine

These treadmills provide a sturdier deck and frame, an extended running belt, and bigger running surfaces.

Pros: The simplest alternative for frequent runners, and made of heavier, additional sturdy materials. Integrated heart-rate management programs, higher easy lay speeds, and vessel easy lay inclines are typical. They rated for heavier folks and are available with the longest warranties.

Cons: it should appear odd; however these dear models tend to own fewer intrinsic programs. Once each sq ft counts, house issues are non-negotiable.

Walking machine guarantee, Delivery, and Set-up

The manufacturer’s guarantee can typically offer you important clues on the standard of the walking machine. Search for a lifespan guarantee on the frame and motor, or at a minimum ten years. Electronics ought to have a five-year guarantee. Components and labor ought to have a two-year guarantee.

How can you get the walking machine into your home? Delivery prices are important if they’re not enclosed in the price. Also, take into account however you’re progressing to move the walking machine from your step to your selected exercising space and whether or not that’s enclosed or can value further. New walking machines sometimes need some assembly and you ought to see if that’s enclosed or needs a separate fee. ” walking Machine Price In Bangladesh ”

Using Your Walking machine

Once you get your walking machine home, you will have lots of opportunities to do out the various programs and obtain a routine. Walking machine workouts get pretty boring if you are doing a similar issue all the time. Make sure to require the time to explore all of the variations, therefore, your new walking machine does not linger in the corner turning into clothes rack.

Visite our  >>  Grocery Shopping

Building Materials in walibazar, Dhaka.

Building Materials in walibazar, Dhaka.

Building Materials in walibazar, Dhaka.

ভূমিকাঃ ন্যানোপ্রযুক্তি (ন্যানোটেকনলজি বা সংক্ষেপে ন্যানোটেক) পদার্থকে আণবিক পর্যায়ে পরিবর্তন ও নিয়ন্ত্রণ করবার বিদ্যা।ন্যানোটেকনোলজি বা ন্যানোপ্রযুক্তিকেসংক্ষেপে ন্যানোটেক বলা হয়। ন্যানোটেকনোলজি পদার্থকে আণবিক পর্যায়ে পরিবর্তন ও নিয়ন্ত্রণকরার বিদ্যা। [১]সাধারণত ন্যানোপ্রযুক্তি এমন সব কাঠামো নিয়ে কাজ করেযা অন্ততএকটি মাত্রায়১০০ ন্যানোমিটার থেকে ছোট।ন্যানোপ্রযুক্তি বহুমাত্রিক, এরসীমানা প্রচলিত সেমিকন্ডাকটর পদার্থবিদ্যা থেকে অত্যাধুনিক আণবিক স্বয়ং-সংশ্লেষণ প্রযুক্তি পর্যন্ত; আণবিক কাঠামোরনিয়ন্ত্রণ থেকে নতুন বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন ন্যানোপদার্থের উদ্ভাবন পর্যন্ত বিস্ত্রৃত। রিচার্ড ফাইনম্যানকে ন্যানোপ্রযুক্তির জনক বলা হয়। বিবরণঃ ন্যানোপ্রযুক্তির ব্যবহার চিকিৎসাবিজ্ঞান , ইলেকট্রনিক্স , শক্তি উৎপাদনসহ বহু ক্ষেত্রে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনতে পারে। অপরদিকে পরিবেশেরউপর এর সম্ভাব্য বিরূপ প্রভাব নিয়েও সংশয় রয়েছে।তারপরও পৃথিবীর বহু দেশে ন্যানোপ্রযুক্তিনিয়ে ব্যাপক গবেষণা চলছে। ইতিহাসঃ আণবিক গিয়ার, নাসার কম্পিউটার সিমুলেশন। ১৯৫৯ সালের২৯ জানুয়ারিরিচার্ড ফাইনম্যান ক্যালিফোর্নিয়া ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজিতে অনুষ্ঠিত আমেরিকান ফিজিক্যালসোসাইটির এক সভায় There’s Plenty of Room at the Bottom শীর্ষক এক বক্তৃতা দেন। এই বক্তৃতাটিই সর্বপ্রথম ন্যানোপ্রযুক্তির ধারণাদেয়। ১৯৮৯ সনের নভেম্বরের ৯ তারিখ ন্যানোটেকনলজির জন্য একটা অন্যতম স্মরণীয় দিন হিসবেবিবেচিত হবে। এই দিনে ক্যালিফোর্নিয়ার IBM এরAlmaden Research Centerএ DonEigler এবং Erhard Schweizer ৩৫ টি Xenon অণু দিয়ে IBM এর লগোটি তৈরি করেছিলেন। সেইদিনই প্রথমঅণুকে ইচ্ছেমত সাজিয়ে পছন্দমত কিছু তৈরি করা সম্ভব হয় মানুষের পক্ষে।এইদিনইপ্রথম মানুষ প্রকৃতির সবথেকে গুরুত্বপূর্ণভিত্তি অণুরকাঠামোকে ভাঙতে সক্ষম হয়েছিল। অণুর গঠনকেইচ্ছেমত তৈরি করেঅনেক কিছু করা সম্ভব। এক বিশাল সম্ভাবনার দ্বারমানুষের সামনে উন্মোচিতহল। শুধুমাত্র অণুর কাঠামোগত পার্থক্যহবার কারণেইকয়লা এত সস্তাআর হীরক এত দামী। দুটিজিনিসের মূলউপাদান হল কার্বণ। শুধু মাত্র অণুর গঠনের পার্থক্যের কারণে হীরক পৃথিবীর সবথেকে শক্ত দ্রব্য আরকয়লা কিংবা পেন্সিলের শীষ নরম। গুনাগুনঃ ১৯৯৯ সনে Cornell বিশ্ববিদ্যালয়ের Wilson Ho এবং তার ছাত্র HyojuneLee অণুকে জোড়া লাগানোর প্রক্রিয়া প্রদর্শন করেন।এতদিন পর্যন্ত অণু- পরমাণুর সংযোগ শুধু মাত্র রাসয়নিকবিক্রিয়ার মাধ্যমেই সংগঠিত হত।কিন্তু ন্যানোটেকনলজিরমাধ্যমে অণু- পরমাণুকে ভেঙে কিংবা জোড়া লাগিয়ে অনেককিছুই করা সম্ভবনার দ্বার খুলে দিল। ন্যানোপ্রযুক্তি কী? ন্যানো একটি মাপার একক। ম্যাট্রিক একক এর শুরুটা হয়েছিল ১৭৯০ সনেফ্রান্সে। ফ্রান্স জাতীয় পরিষদ এককগুলিকে সাধারণ করবার জন্য কমিটি গঠন করে এবং তারাই প্রথমডেসিমাল কিংবা দশ একক এর ম্যাট্রিক পদ্ধতির প্রস্তাবকরেন। এবংদৈর্ঘ্যের এককএক মিটার এরসূচনা করেন। তারাপৃথিবীর পরিধির ৪০,০০০,০০০ ভাগের এক ভাগকে এক মিটার বলেন। মিটার শব্দটি গ্রিক শব্দ metron থেকেএসেছে যার অর্থ হল, পরিমাপ।BUILDING'S MATERIALS এছাড়ামিটার এর ১০০ ভাগের এক ভাগকে সেন্টিমিটার বলা হয়।১৭৯৩ সনে ফ্রান্সে আইন করেতা প্রচলন করা হয়। ১৯৬০সনে এই মিটার এরসংজ্ঞা পরিবর্তন করা হয়। উপকারিতাঃ ক্রিপটন ৮৬ এর কমলারঙের রেডিয়েশন এর তরঙ্গদৈর্ঘ্যের ১,৬৫০,৭৬৩.৭৩ ভাগের এক ভাগকে মিটারবলা হয়। ১৯৮৩সনে মিটার এর সংজ্ঞা পুনরায়পরিবর্তিত করা হয়, বর্তমানসংজ্ঞা অণুযায়ী, বায়ুশুন্যে আলোর গতির ২৯৯,৭৯২,৪৫৮ ভাগের এক ভাগকে মিটার বলা হয়। এই মিটার এর১,০০০,০০০,০০০ (১০০ কোটি) ভাগের এক ভাগকে ন্যানোমিটার বলা হয়।ন্যানো শব্দটি গ্রিকnanos শব্দ থেকেএসেছে যার অভিধানিকঅর্থ হলdwarft কিন্তু এটি মাপের একক হিসাবে ব্যবহৃত হচ্ছে। আর এই ন্যানোমিটারস্কেলে যে সমস্ত টেকনোলজি গুলিসর্ম্পকিত সেগুলিকেই বলে ন্যানোপ্রযুক্তি। মিটার এককটিআমাদের দৈনন্দিন জীবনেরসাথে জড়িত। বাড়িঘরআসবাবপত্র সবই আমরা মাপি এই মিটার এককে। দ্বিতীয়বিশ্বযুদ্ধের আগ পর্যন্ত মিলিমটার স্কেলে যন্ত্রপাতিরসূক্ষতা মাপা হত।মিলিমিটারএর ছোট কোন কিছু নিয়ে চিন্তা ভাবনার অবকাশ ছিলনা। কিন্তু দ্বিতীয়বিশ্বযুদ্ধ শেষ হবার পরে, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে একনতুন যুগেরসূচনা হল। সেমিকণ্ডাকটর তার পথযাত্রা শুরুকরল। আরএরশুরুটা হল, ট্রানজিস্টর আবিষ্কার দিয়ে। তখনমাইক্রোমিটার একক দিয়ে আমাদের চিন্তভাবনা শুরু হল। বলা যায় যাত্রা শুরু হল, মাইক্রোটেকনোলজির। এরপরে টেকনোলজিএগুতে লাগলোপ্রচন্ড গতিতে। নানা জিনিসপত্র, যার মধ্যে টেলিভিশন, রেডিও, ফ্রিজ ইত্যাদি ইত্যাদি। আর তা কিভাবেআরো ছোটকরা যায় তা নিয়েইপ্রচন্ত যুদ্ধ শুরু হয়ে গেল।কোন কম্পানিকত ছোট আকারের এইসমস্ত ভোগ্য জিনিস আমাদের কাছেপৌঁছাতে পারবে, তার প্রতিযোগিতা শুরু হল। আর এই সমস্ত ব্যাপারটা সম্ভবহল, সেমিকণ্ডাকটর সংক্রান্ত প্রযুক্তিরকল্যাণে। প্রথমদিকের রেডিও কিংবা টিভির আকারদেখলে আমাদেরএখন হাসি পাবে। এত বড়বড় জিনিস মানুষ ব্যবহার করত কিভাবে? সেই প্রশ্নটি হয়তোএসে দাড়াবে।কিন্তু এখন বাজারে দেয়ালে ঝুলাবার জন্য ক্যালেন্ডারেরমত পাতলা টিভি এসেছে। সামনে হয়তোআরো ছোটআসবে। ১৯৮০ সনে IBMএর গবেষকরা প্রথম আবিষ্কার করেন STM(Scanning Tunneling Microscope) এই যন্ত্রটি দিয়ে অণুরগঠন পর্য়ন্ত দেখা সম্ভব। এইযন্ত্রটির আবিষ্কারই ন্যানোপ্রযুক্তিকেবাস্তবে রূপদিতে সক্ষম হয়েছে। কিভাবে কাজকরে এই STM। এইযন্ত্রে খুব সূক্ষপিনের মত সুচাল টিপ আছে এবং তা যখন কোন পরিবাহী বস্তুর খুবকাছে নিয়ে যাওয়া হয়, তখনতা থেকে টানেলিং নামে খুব অল্প পরিমাণে বিদ্যুৎ পরিবাহিত হয়।এবং এইবিদ্যুৎ এর পরিমাণ দিয়েই সেই বস্তুটির বাহিরেরস্তরেরঅণুর চিত্রতৈরি করা হয়। তবে এই STM এর ক্ষেত্রে যা দেখতে চাইবোতাকে অবশ্যই বিদ্যুৎ পরিবাহী হতেহবে। কিন্তুবিদ্যুৎ অপরিবাহীর অণুর গঠন কিভাবে দেখা যাবে? না মানুষ বসে থাকেনি। অসম্ভবকে সম্ভবকরেই মানুষ যেভাবে এতদূর এসেছে, তেমনি ভাবে এই অসম্ভবকে সম্ভব করা গেল AFM দিয়ে। STM এরক্ষেত্রে টানেলিংবিদ্যুৎ দিয়েকাজ করা হয় এবং AFM দিয়ে সূক্ষ্মপিন দিয়েঅণুর গঠন দেখা সম্ভব। টপ টু ডাউন ও ডাউন টু টপ ন্যানোটেকনোলজির ক্ষেত্র দুটিপ্রক্রিয়া আছ।একটি হল উপর থেকে নীচে(Topto Bottom)ও অপরটি হল নীচ থেকে উপর(Bottom to top)। টপডাউন পদ্ধতিতে কোন জিনিসকেকেটে ছোট করে তাকে নির্দিষ্টআকার দেয়া হয়। এই ক্ষেত্রসাধারণত Etching প্রক্রিয়াটি সর্ম্পকিত।আর ডাউনটুটপ হল ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র আকারের ছোট জিনিসদিয়ে বড় কোন জিনিস তৈরি করা। উপসংহারঃ আমাদেরর বর্তমানইলেক্ট্রনিক্স হল, টপডাউন প্রযুক্তি। আরন্যানোটেকনোলজির হল, বটমটপ প্রযুক্তি।ন্যানোমিটার স্কেলেক্ষুদ্র ক্ষুদ্র বস্তুর উপাদান দিয়ে তৈরি করা হবে এই ন্যানোপ্রযুক্তিতে। সহজে বুঝবার জন্যএকটা উদাহরণ দেয়া যাক।মনে করুন, আপনার একটাবিশেষধরনের DNA এর প্রয়োজন। সুতরাং বটমটপ প্রযুক্তিতে, সেই DNA এর ছোট ছোট উপাদানগুলিকে মিশ্রন করে সেইকাঙ্খিত DNA টি তৈরি করা হবে। তবে নানোপ্রযুক্তিতে শুধু মাত্র বটমটুটপ প্রযুক্তিই নয়, বরং টপটুবটম প্রযুক্তি ব্যবহার করে এই দুটির সংমিশ্রন করা হবে। আমরা যারাকম্পিউটার ব্যবহার করছি তারাজানি যে, প্রতি বছরই কম্পিউটার এরমূল্য কমছে।প্রতিবছরই আগেরতুলনায় সস্তায় আরোভাল কার্যক্ষমতার কম্পিউটার পাওয়া যাচ্ছে। আসলে এই কম্পিউটার এর সাথেও ন্যানোটেকনোলজি সম্পর্কিতরয়েছে। কম্পিউটার এরভিতর যেপ্রসেসর আছে, আপনারা প্রায় সবাই ইন্টেল প্রসেসর এর নাম শুনে থাকবেন? এই প্রসেসর এর ভিতরে রয়েছেঅসংখ্য ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ন্যানোমিটার স্কেলের সার্কিট। আর তাতে ব্যবহৃত হচ্ছে ন্যানোটেকনলজি। ইন্টের প্রসেসরে, সিলিকন এর উপর প্যাটার্ণকরে সার্কিটবানান হয় তার বর্তমান সাইজ হল ১০০ ন্যানোমিটার। সামনের তিন বছরে এর আকার হবে ৭০ ন্যানোমিটার। এবংসাতবছরে এর আকার হবে৫০ ন্যানোমিটার। ইন্টেল আশা করছে যে ২০১০ সনে তারা ৩০ ন্যানোমিটার সাইজে নিয়ে আনতেপারবে। আর আজকের থেকে তখনএই প্রসেসর এর আকার অর্ধেক হয়ে আসবে। সেই দিনটা খুব বেশি দূরে নয়যেদিন আপনার মোবাইলটিকাজ করবে কম্পিউটারেরমত। (বর্তমানেইএই ধরনের কিছু মোবাইল বাজারে এসেছে)। এছাড়ারয়েছে কম্পিউটারের হার্ডডিস্ক। এই হার্ডডিস্কের তথ্য সংরক্ষণেরক্ষমতা দিন দিন বড়ছে। এই হার্ডডিস্কেও ব্যবহৃত হচ্ছে ন্যানোটেকনলজি। এখন বাজারে ৪ টেরাবাইটের হার্ডডিস্ক পাওয়া যাচ্ছে। অথচ এই ব্যাপারটা আজ হতে ১০ বছর আগেও ছিল কল্পনার বাহিরে। স্থির বিদ্যুৎ ও তার কারসাজি ন্যানোটেকনলজি দিয়ে সার্কিট বানানযতটা সোজাবলে মনে করা হয়, ব্যাপারটা ততটা সোজা নয়। সেইখানে প্রধান যেবাধা এসে দাড়াবে তা হল, স্থির বিদ্যুৎ। শীতের দিনেবাহির থেক এসে দরজার নবে হাত দিয়েছেন? এমনি সময়হাতে শক লাগলকিংবাঅন্ধকারে সুয়েটার খুলতে গেছেনএমনি সময় বিদ্যুৎ এর মত কণা সুয়েটারে দেখাগেল। নতুননতুন দ্রব্য এর সূচনা করছে এবংসেই সাথে ব্যবসায়িক সুযোগের দ্বার উন্মোচন করছে। by Muntaha Moon

Online shopping in Dhaka, wali bazar.com

Online shopping in Dhaka, wali bazar.com

Online shopping in Dhaka, wali bazar.com

ভূমিকাঃ অনলাইন ব্যবসার বিষয়টি দিনে দিনে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। শুধু জনপ্রিয়ই নয়, অনলাইন ব্যবসার মাধ্যমে মানুষ নিজের নিশ্চিত সুন্দর এবং সফল একটি ক্যারিয়ারও দেখতে পাচ্ছে। অনলাইনে নির্দিষ্ট কোনো ব্যবসায় আজ আটকে নেই কেউ। রোজ নতুন নতুন আইডিয়া নিয়ে অনলাইনে ব্যবসা করতে নামছে অনেকেই। যারা অনলাইনে ব্যবসা করতে নামছেন, তাদের অধিকাংশই নিজের ব্যবসাকেই নিজের ক্যারিয়ার হিসেবে ধরেই নামছেন। বিবরনঃ বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা হচ্ছে অনলাইনে, কেউ ফেসবুক পেজে, কেউ বড় পরিসরে নিজস্ব ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ব্যবসা করছেন, কেউ বা আবার নির্দিষ্ট কিছু বড় ওয়েবসাইটের অধীনে চুক্তিভিত্তিক কাজ প্রদানের ব্যবসাও করছেন। তাই সময়টা এখন আসলেই অনলাইন ব্যবসার। উপকারিতাঃ এবারের ক্যারিয়ারের মূল ফিচারে তুলে ধরা হলো সময়ের অন্যতম ৫টি সেরা অনলাইন ব্যবসা। যেই ব্যবসাকে আপনি আপনার ক্যারিয়ার হিসেবে নিতে পারেন স্বাচ্ছন্দ্যেই। লিখেছেন মাহবুব শরীফ ই-কমার্স এই মুহূর্তে অনলাইনের সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং বহুল ব্যবহূত ব্যবসাই হচ্ছে ই-কমার্স। অনলাইনের মাধ্যমে কেনা-বেচা। শপিং মলে গিয়ে শপিং করার পুরোপুরি ফ্লেভার না থাকলেও গ্রাহকরা অনলাইনে নিজের পছন্দমতো প্রয়োজনীয় পণ্যের অর্ডার করছে, বাসায় বসেই ডেলিভারি পাচ্ছে। ইচ্ছে হলে পরবর্তীতে পণ্যটি ফেরত দেওয়া কিংবা বদলানোর সুযোগও থাকে। আমাদের দেশেও এখন অনেকগুলো ই-কমার্সের ব্যবসা রয়েছে। তবে পার্শ্ববর্তী দেশগুলোতে ই-কমার্সের ব্যবসাটি যতটা জনপ্রিয় হয়েছে, সেই তুলনায় আমাদের দেশে কিছুই না। এর বড় কারণ হলো মার্কেটিং, পণ্যের গুণগত মান নিশ্চয়তাসহ গ্রাহক সেবা। কিছু কিছু অনলাইনের দূর্নীতির জন্য অনেকেই অনলাইনে পণ্য অর্ডার করতে ভয় পান। তবে হ্যাঁ, ই-কমার্স মার্কেটের বিকল্প নেই ভবিষ্যতে। তাই একটি গ্রাহকের সব ধরনের প্রয়োজন মেটাতে, তার সেবা নিশ্চয়তা দিতে যা যা করণীয় এর সব কিছু যদি আপনি নিশ্চিত করতে পারেন। পাশাপাশি এর মার্কেটিংটাও যদি আপনি বড় আকারে করতে পারেন। তাহলে অবশ্যই আপনি এই পেশায় সফল একজন হতে পারবেন। ইতিহাসঃ এই ব্যবসাকে ক্যারিয়ার হিসেবে ধরে অনেক দূর এগিয়েও যেতে পারবেন। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এমন একটি ব্যবসা, যেখানে নিজের কোনো পূঁজি থাকার একদমই প্রয়োজন নেই। যেমন ধরুন গত ৩ দিন ধরে আপনার ঠান্ডা জ্বর। ডাক্তারের কাছে গেলেন চিকিত্সার জন্য। ডাক্তার আপনাকে কিছুক্ষণ দেখে বললেন, কিছু মেডিকেল টেস্ট করা লাগবে। টেস্টের ফলাফল না দেখে আমি কোন ঔষধ দিতে পারব না। সাথে বলে দিলেন এবিসি ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে টেস্টগুলো করাতে। ডাক্তার কেন এবিসি ডায়াগনস্টিক সেন্টারের নাম বললেন? তিনি তো অন্য কোন ডায়াগনস্টিক সেন্টারের নামও বলতে পারতেন। এর কারণ হলো—পূর্ব থেকে ডাক্তারের সাথে এবিসি ডায়াগনস্টিক সেন্টারের চুক্তি রয়েছে, যেখানে বলা ছিল- ডাক্তারের রেফারেন্সে যত রোগী এই ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আসবেন তাদের প্রত্যেকের কাছ থেকে প্রাপ্ত টাকার উপর নির্দিষ্ট হারের কমিশন ডাক্তারকে দেওয়া হবে। ডাক্তার এই যে রোগীকে blankএকটি রেফারেল দিয়ে নির্দিষ্ট অর্থ আয় করলেন এটিই উক্ত ডাক্তারের অ্যাফিলিয়েট আয়। অন্যের পণ্য বা সেবা প্রচার এবং প্রচারণার মাধ্যমে বিক্রি করে দেওয়া বা বিক্রি করতে সাহায্য করা এবং সেটা থেকে নির্দিষ্ট হারে কমিশন গ্রহণ করা হচ্ছে একজন মার্কেটারের অ্যাফিলিয়েশন আয়। আর এই পুরো প্রক্রিয়াটাই অ্যাফিলিয়েশন মার্কেটিং। ইন্টারনেটের মাধ্যমে পণ্য বিক্রি করার যত উপায় আছে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং হচ্ছে তন্মধ্যে অন্যতম কার্যকরী মাধ্যম। এই মাধ্যমকে ব্যবহার করে ইন্টারনেটের মাধ্যমে কোনো প্রতিষ্ঠানের পণ্যের প্রচার চালিয়ে আয় করতে পারেন ইন্টারনেট মার্কেটাররা। উপকারিতাঃ সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে পণ্য বিক্রি করতে চান সেগুলো হলো— ১. বিশ্বব্যাপী দ্রুত পণ্যের প্রচারণার জন্য, ২. বিক্রি বাড়ানোর জন্য, ৩. পণ্য বা সেবার মার্কেটিং খরচ কমানোর জন্য, ৪. পণ্য বা সেবার ব্র্যান্ডিং বাড়ানোর জন্য। ওয়েব ডিজাইনিং আপনার যদি ওয়েব ডিজাইন এবং HTML সম্পর্কে জ্ঞান থাকে তাহলে ওয়েব ডিজাইন করার কাজটিকে ব্যবসা হিসেবে নিতে পারেন। এখন এমন অনেকে অনলাইনে ব্যবসা করছেন যারা অচিরেই অয়েবসাইট খুলতে আগ্রহী। যাদের ওয়েবসাইট আছে, তাদেরও অনেকের সাইট অনেক দূর্বল ডিজাইনের কারণে আকর্ষনীয় হচ্ছে না। অনলাইনে থিম ফরেস্ট, প্রিমিয়াম সাইটসহ এ ধরনের অনেক ই-কমার্স সাইট আছে যেখানে আপনি আপনার বানানো ওয়েব টেমপ্লেটটি কমিশনের ভিত্তিতে বিক্রি করতে পারবেন। একই টেমপ্লেট বহুবারও বিক্রি হয় এসব সাইটে। তাই এই বাজারটি ধরার এখনই মুখ্য সময়। মার্কেট প্লেস থেকে আয় অনলাইনে ফাইভআর-এর মতো অনেক সাইট রয়েছে যেখানে আপনি যে ধরনের কাজ জানেন সেই কাজটিই করতে পারবেন। একজন কার্টুনিস্ট থেকে শুরু করে, ছবি এডিট, ডিজাইনসহ যত ধরনের অনলাইনভিত্তিক কাজ রয়েছে সবই করতে পারবেন। আপনি শুধু আপনার কাজের কিছু পোর্টফোলিও আপলোড করে রাখলেই আপনার কাজ দেখে আপনার কাছ থেকে তার কাঙ্ক্ষিত কাজটি করিয়ে নেবে। এখানে নিয়মিতই কাজ করা যায়, একে ব্যবসা হিসেবে নিয়ে কাজ করছে অসংখ্য লোকজন। ই-বুক লেখা। উপসংহারঃ অনেক লেখক আছেন যারা বই লেখেন কিন্তু প্রকাশকরা তাদের বই প্রকাশ করছেন না বলে থেমে আছেন। মানুষ কিন্তু এখন কাগজের বইয়ের বাইরে অনলাইনে বই পড়তে প্রকটভাবে আগ্রহী হচ্ছে। খুবই কম খরচে ই-বুক হিসেবে নিজের লেখা প্রকাশ করতে পারেন। নিজের মেধাকে প্রকাশিত করে পরিচিতি বাড়াতে পারেন সহজেই এই পেশার মাধ্যমে। ঠিকমতো পরিচালনা করতে পারলে এর বাজার এখন অনেক বড়। 1) Become a supermarket and get it after measuring up to 25% reduction in price. 2) Deliveries within 1 hour of the specified time. The products sold are refundable. 3) Special offers of “Wow offer” for up to 50% discount for some product on every lucky day. 4) You get special discounts on both Save your Time & Tk. 5) Delivery or Shipping cost is fully free in Tha Dhaka City. 6) The more you buy then more you earn points by payment advance. 7) There are included VAT & others packaging tax so that save your Time & Tk up to 10% more. 8. Anybody can save your Time & Tk by getting a “RESHON D-CARD” up to 12% discount more. 9. We check and refresh every order items, so you will get 100% Halal & Fresh Food at a low price from the super shop for save your Time & Tk. 10. WaliBazar.Com is a project of WALI MUHAMMAD FOUNDATION LIMITED so you can trust us about 100% confidence.  by Ćhäîñ Śmökêř

Coming Soon-- Dismiss