Posted on

বাংলদেশে অনলাইনে ইনকাম কিভাবে করবেন ?

বাংলদেশে অনলাইনে ইনকাম কিভাবে করবেন ?

 বাংলদেশে অনলাইনে ইনকাম কিভাবে করবেন ?

ভূমিকা: অনলাইনে আয় এখন কোন স্বপ্ন নয় বরং বাস্তবতা। আইটি ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে । সেই সাথে বাড়ছে ফ্রি-ল্যান্সারদের সংখ্যা ও অনলাইন ইনকাম । অনেকেই নতুনভাবে আগ্রহী হচ্ছেন ফ্রি-ল্যান্সিং বা আউটসোর্সিং এ যারা অনলাইন কাজ করে আয় করতে আগ্রহী । সঠিক তথ্যের অভাবে অনেকেই অনলাইনে আয় করতে পারেন না বা যানা নেই কিভাবে অনলাইনে টাকা আয় করা যায় । যারা

blank
ঘরে বসে আয় করুন

নতুনভাবে ফ্রিল্যান্সিং ও আউটসোর্সিং শুরু করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য আমাদের এই বাংলা অ্যাপস । এখন বাংলাদেশের অনেক ছেলে মেয়ে ঘরে বসে আয় করছে প্রচুর পরিমান বৈদেশিক মুদ্রা। এতে করে একদিকে তারা হইয়ে উঠছে স্বাবলম্বী অন্যদিকে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে রাখছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা । অনলাইনে অায়ের উপায়: এমন অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলো পাঠকদের লেখায় আপডেট হতে থাকে। কোন কোন সাইটে তারা লেখকদের সাথে মুনাফা ভাগ করে নেয়। আপনি এখানে বিভিন্ন নিবন্ধ লিখতে পারেন আর আপনার আর্টিকেল বা নিবন্ধ যতো বেশি পাঠক পড়বে, ততো বেশি টাকা পাবেন। “শুভং” নামক একটা ওয়েবসাইট আছে যারা তাদের লেখকদের সাথে শতকরা ১০ ভাগ গুগল এডসেন্স-এর লভ্যাংশও ভাগ করে নেয়। যদি আপনি একজন ফটোগ্রাফার বা চিত্রগ্রাহক হয়ে থাকেন, তবে আপনার তোলা আকর্ষণীয় ছবিগুলো অনলাইনে বিক্রি করতে পারেন। অনলাইনের ডিজাইনাররা তাদের প্রজেক্টের জন্যে অনেক ছবি খুঁজে থাকেন, তাদের নিকট ছবিগুলো বিক্রি করতে পারেন। এই ছবিগুলো আই-স্টক-ফটোস্‌ ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিক্রিও করতে পারবেন। ফেসবুক কি তা আর নতুনভাবে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেয়ার কোন দরকার আছে বলে আমি মনে করি না। ফেসবুক হল আজকের দুনিয়ার সবচেয়ে জনপ্রিয় সোস্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট। তাই অনেকেই জানতে চান ফেসবুক থেকেও কিভাবে টাকা আয় করা যায়। আমি বলল হ্যা ফেসবুক থেকেও টাকা আয় করা যায়। কারন আমরা জানি যে সারা পৃথীবির ৮০ কোটির বেশি মানুষ ফেসবুক ব্যবহার করে। তাই মার্কেটিং জাতিয় কাজের বড় ধরনের সুযোগ এখানে রয়েছে। তবে আপনার বন্ধু বা ফ্যান অনেক বেশি এই কারনে ফেসবুক আপনাকে টাকা দিবে না, কিন্তু এই পরিমান বন্ধু বা ফ্যান কে নির্ভর করেই আপনাকে আয় করতে হবে। মোট কথা একে প্রচারের কাজে ব্যবহার করা লগবে। ঘরে বসে ফ্রি-লেন্সিং করে আয় রোজগারের একটা চমৎকার সুযোগ। আপনি যদি ডাটা এন্ট্রি, গ্রাফিক্স ডিজাইন অথবা এডমিনিস্ট্রেশন বা তদারকির কাজে দক্ষতা থাকেন তাহলে, অনলাইনে এসব কাজ করে আয় রোজগার করতে পারেন। আপনি চাইলে ফ্রিলেন্সিংভিত্তিক একটা ক্যারিয়ারই গড়ে তুলতে পারেন। উপসংহার: আমি অনলাইনে কত টাকা আয় করতে পারবো? এটা আমার পরিশ্রম, দক্ষতা আর পদ্ধতির উপর নির্ভর করবে। এখান হতে সত্যিই অনেক টাকা আর্ন করা যায়, যদি আপনি ধৈর্য ধরেন আর কঠোর পরিশ্রম করেন। কখনো চুরি, ধোঁকাবাজি করবে না আর কাজের প্রতি সৎ থাকার চেষ্টা করবেন। BY Suhayla Subah Hir

EARN FOR SHOPPING  : ( ইনভাইট করে, আয় দিয়ে ফ্রি শপিং )

আপনার প্রতিবেশী ও বন্ধুকে আমন্ত্রন বা ইনভাইট করে তাদের ২% কমে ক্রয়ের কুপন দিয়ে সু-সংবাদ দিন । এতে দুই ভাবে অায় করুন। আপনার ১ম অর্ডারের পর ইনশাল্লাহ ২% ছাড়ের কুপন নম্বরটি মেসেজ করে দেয়া হবে ।

ক) নগদ আয় :

নতুন কাস্টমারকে ইনভাইট করে ১-৩টি অর্ডারে মোট =  ১০০০ টাকার বাজার করাতে পারলে, নগদ পুরষ্কার =১০০ টাকা ।

অবশ্যই আপনার ইনভাইটকারীর অর্ডারের পূর্বে 01975030501 নম্বরে মেসেজ অথবা wmflbd@gmail.com ই-মেইলৈ তার নাম, ফোন ও বিবরন পাঠাতে হবে  ।

খ) দীর্ঘমেয়াদী আয় :

নতুন কাস্টমারকে ইনভাইট করে ১টি অর্ডার করাতে পারলে, তার সকল অর্ডারে ১% কমিশন আপনি পাবেন, সারা জীবন।

অবশ্যই আপনার ইনভাইটকারীর অর্ডারের পূর্বে 01975030501 নম্বরে মেসেজ অথবা wmflbd@gmail.com ই-মেইলৈ তার নাম, ফোন ও বিবরন পাঠাতে হবে  ।

blank

আপনার প্রতিবেশী, বন্ধু ও যৌথ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের ওয়ালী বাজারে এ অর্ডারের আমন্ত্রন করুন। EARN FOR SHOPPING এর পাতায় সোসাল মিডিয়ার কিছু লিংক দেয়া আছে, “আমার কাছে % ছাড়ের কুপন কোড আছে” এই কথা লিখে শেয়ার করার মাধ্যমে আপনি “ওয়ালী বাজারের” বৈধ ও হালাল সেবাকে প্রচার করতে পারেন। অত:পর যে  ২ছাড়ের কুপন কোডটি চাইবে, তাকে কুপন কোডটি দিন  । উল্লেখ্য যে, আপনার ১ম অর্ডারের পর ইনশাল্লাহ ২% ছাড়ের কুপন নম্বরটি মেসেজ করে দেয়া হবে । অবশ্যই আপনার ইনভাইটকারীর অর্ডারের পূর্বে 01975030501 নম্বরে মেসেজ অথবা wmflbd@gmail.com ই-মেইলৈ তার নাম, ফোন ও বিবরন পাঠাতে হবে  । তাতে আমরা প্রত্যেক কাস্টমারের আইডির সাথে ইনভাইটকারীর আইডি নং যুক্ত করে দিতে পারবো। আর মাস শেষে মেসেজ করে আপনার আয় কত হল ? তা মাস শেষে এই পেইজে দেখতে পারবেন এবং প্রতি বছর শেষে ৩১শে ডিসেম্বর হিসেব করে আর ১% দিয়ে পরবর্তি বছরে উক্ত আয় দিয়ে ফ্রি বাজার করতে পারবেন।

নিয়মাবলী :

ব্র্যান্ড আইটেমসহ সকল গ্রোসারী পন্য বাজার মূল্য হতেও ২% ছাড়ে বিক্রি হয়। যার মাধ্যমে কাস্টমার আসে উনি পাবেন মোট বিক্রির ১% টাকা। যদি আপনার কথায় ১০০ কাস্টমার এসে ২%  ছাড়ে পন্য কেনা শুরু করে যতদিন কিনবে ততদিন পাবেন।

উদাহরন :

আপনার অনুরোধে মাসে ৫০০০ টাকা করে ১০০ জনে যদি ৫ লাখ টাকার পন্য ৪.৯ লাখে কিনে তবে আপনার একাউন্টে ১% হিসেবে সে মাসে ৪,৯০০ টাকা জমা হবে। যা দ্বারা আপনিও ২% ছাড়ে বাজার ক্রয় করতে পারবেন। এখানে প্রত্যেক কাস্টমারের আইডির সাথে ইনভাইটকারীর আইডি নং যুক্ত থাকবে। মাস শেষে মেসেজ করে জানানো হবে। এভাবে পরের মাসে আরও ১০০ জনকে অনুরোধ করে বাজার মূল্য হতেও ২% কমে কিনার অনুরোধ করে আপনি পেতে পারেন – ৪,৯০০/-+ ৯,৮০০/-= ১৪,৭০০/- টাকা । মাসিক আয়  ৪,৯০০ করে বৃদ্ধি হলে ১২ মাস পর  ১% হিসেবে আপনার মোট আয় হতে পারে = ৩,৮২,২০০/-  টাকা ।

ইনভাইটকারীর মাসিক আয়ের একটা হিসাব দেখানো হল :

মাস         ক্রেতা সংখ্যা       বাজার মূল্য          ২% ছাড়ে মোট বিক্রি            ইনভাইটকারীর ১% কমিশন

১ম              ১০০                  ৫,০০,০০০                  ৪,৯০,০০০                                  ৪,৯০০

২য়              ২০০                ১০,০০,০০০                 ৯,৮০,০০০                                  ৯,৮০০

৩য়            ৩০০                ১৫,০০,০০০               ১৪,৭০,০০০                                  ১৪,৭০০

৪র্থ            ৪০০                 ২০,০০,০০০               ১৯,৬০,০০০                                 ১৯,৬০০

৫ম            ৫০০                ২৫,০০,০০০               ২৪,৫০,০০০                                ২৪,৫০০

৬ষ্ঠ            ৬০০               ৩০,০০,০০০               ২৯,৪০,০০০                                 ২৯,৪০০

৭ম            ৭০০                ৩৫,০০,০০০               ৩৪,৩০,০০০                                ৩৪,৩০০

৮ম           ৮০০                ৪০,০০,০০০                ৩৯,২০,০০০                                ৩৯,২০০

৯ম            ৯০০                ৪৫,০০,০০০               ৪৪,১০,০০০                                  ৪৪,১০০

১০ম         ১০০০               ৫০,০০,০০০               ৪৯,০০,০০০                                 ৪৯,০০০

১১তম       ১১০০               ৫৫,০০,০০০               ৫৩,৯০,০০০                                ৫৩,৯০০

১২তম      ১২০০              ৬০,০০,০০০               ৫৮,৮০,০০০                                ৫৮,৮০০

১২ মাসে  ২%  ছাড়ে   মোট  বিক্রি   = ৩,৮২,২০,০০০/-, ১% কমিশন = ৩,৮২,২০০/- টাকা।

পরের বছর বিনা কষ্টেই পাচ্ছেন ৭,০৫,৬০০/- (সাত লক্ষ পাঁচ বাজার ছয়শত টাকা) একটু ভেবে দেখুন। 

সুতরাং প্রতিবেশী, বন্ধু ও যৌথ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের ওয়ালী বাজারে এ অর্ডারের আমন্ত্রন করে ২% কমে কিনার অনুরোধ করে বিশেষ উপকার করুন এবং  সাথে সাথে আপনিও আয় করুন লক্ষ লক্ষ টাকা এবং তা দিয়ে ওয়ালী বাজারে ফ্রি বাজার করুন। উল্লেখ্য যে কোম্পানীর সকল স্টাফ ও কর্মকর্তা-কর্মচারীগন ইনভাইট করতে পারবেন না।

উল্লেখ্য যে, শুধুমাত্র  গ্রসারী-ষ্টোর আইটেম বা মুদি বাজারের ক্ষেত্রে  উপরোক্ত অফার সমূহ প্রজোয্য।

blank
google pagerank checker by smallseotools.com