মানুষের চাহিদা

মানুষের চাহিদা

সুচনা:

সম্পদের প্রতি মানুষের রয়েছে দুর্নিবার তৃষনা ও লোলুপ দৃষ্টি ।প্রচুর সম্পদ আহরনের পরেও তার অতৃপ্ত থাকে ।যে যত পায় সে তত চায় ।এই চাওয়া এবং পাওয়ার কখনো শেষ নেই ।

বর্ণনা:

মানুষের বাঁচার জন্য ৫টি মৌলিক অধিকার বা চাহিদা হলো খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা, চিকিৎসা। বর্তমানে এই ৫ টি মৌলিক চাহিদা যা না থাকলেই নয় এবং আমরা, এই বিষয়ে ছোট্ট একটি আলোচনা করবো ।

খাদ্য: খাদ্য মানুষের একটি বড় মৌলিক চাহিদা। বাঁচার জন্য মানুস খাদ্য খায়। কিন্তু বর্তমানে খাওয়ার জন্যই মানুষ বাঁচে। তাছাড়া রেস্টুরেন্টে বসে খাবেরে সাথে সেলফি না হলে খাবার অভিমান করে পেটে হজম হতে চায় না।

বস্ত্র: বস্ত্র মানুষের ২য় মৌলিক চাহিদা। মানুষের দেহকে ঢেকে রাখা এবং লজ্জা আবরণ করা বস্ত্রের কাজ। কিন্তু বর্তমানে মানুষ অন্যকে দেখানোর ও সৌন্দর্য প্রদর্শনের জন্য প্রয়োজনের চেয়েও অতিরিক্ত অর্থ ব্যয় করে এই বস্ত্রের পেছনে।

বাসস্থান: বাসস্থান মানুষের একটি মৌলিক চাহিদা। বাসস্থান মানুষের একটি নির্দিষ্ট জায়গা যেখানে সে একটি ছাদ এবং কয়েকটি দেয়ালের মধ্যখানে থেকে নিজেকে রোদ, বৃষ্টি, ঝড় ইত্যাদি থেকে রক্ষা করতে পারে। কিন্তু বর্তমানে একটির বেশী বাসস্থান এবং তা জাকজমকপূর্ণ বা নামি এবং দামি হওয়া একটি বিশেষ প্রয়োজন হয়ে পরেছে।

শিক্ষা: বলা হয়ে থাকে শিক্ষা মানুষকে মানুষ বানায় এবং একজন প্রকৃত শিক্ষিত মানুষ দেশের সম্পদ। কিন্তু বর্তমানে শিক্ষা মানুষকে শিক্ষিত মূর্খ হওয়া শিক্ষা দিচ্ছে। তাছাড়া শিক্ষা শুধুই নাম্বার অর্জন করা পর্যন্তই সিমাবদ্ধ এবং তা চাকরি বা অর্থ উপার্জনের সার্টিফিকেট।

চিকিৎসা: চিকিৎসা মানুষের একটি মৌলিক অধিকার।অসুস্থ ব্যাক্তির সুস্থতার জন্য চিকিৎসার প্রয়োজন হয়। এক কথায় জীবনকে বিপন্ন হওয়া থেকে বাঁচাতে এবং শারীরিক ও মানসিক ভাবে মানুষকে পূর্বের ন্যায় সচ্ছলতা ফিরিয়ে দেয়াই হল চিকিৎসার মুল উদ্দেশ্য । কিন্তু বর্তমানে নামি ডাক্তার এবং দামি হসপিটাল না হলে সুস্থ মানুষও অসুস্থ হয়ে পরে। তাছাড়া সাধারণ কাশি হলেও মানুষ অর্থ খরচ করে ডাক্তারের পেছনে দৌড়াতে বেশী পছন্দ করে।

সবার চাহিদা এক নয়। যারা এর ব্যতিক্রম তাদের এই মৌলিক চাহিদা পূরণে প্রতিটি মুহুর্ত্বে সংগ্রাম করতে হয়। তাদের জীবনের শেষ চলে আসে কিন্তু অবস্থার পরিবর্তন হয় না আর হলেও তা অতি সামান্য কিন্তু তা তাদের কাছে খুব বড় কিছু। এমন মানুষও আছে যারা খুদার যন্ত্রণায় আবর্জনায় পড়ে থাকা খাবার ও খেয়ে থাকে। দেহকে ঢাকার জন্য থাকে এক টুকরো কাপড়। বাসস্থান বলতে খোলা আকাশ বা ফুটপাত। শিক্ষা তাদের কাছে শুধুই একটি স্বপ্ন। আর চিকিৎসা বলতে গেলে সরকারি হসপিটালের অবহেলা এবং পশু সাদৃশ্য ব্যাবহার। এই হল আমাদের সমাজ।

উপসংহার:

পরিশেষে আমার একটি কবিতার চারটি লাইন দিয়ে শেষ করবো।

“অর্থ সমাজের চাবিকাঠি,
জীবন এখানে নগণ্য,
অর্থ আছে যার ভুরি ভুরি,
বাঁচার অধিকার শুধুই কি তার জন্য? “- Sanjida Aktar Nipa

google pagerank checker by smallseotools.com