চাকরী

মার্কেটিং একজিকিউটিভ ম্যানেজার পদে চাকরীর নিয়োগ (আপাতত বন্ধ)

লোকেশন ও কাজের ধরন : ঢাকা সিটির নির্দিষ্ট থানার বিভিন্ন মহল্লা বা এলাকায় অফিস, ব্যাংক, মার্কেট, মুদি দোকান, টি-স্টল, পার্ক, স্কুল-কলেজ, বাসা-বাড়ি, কাঁচা বাজারসহ বিবিধ স্থানে গিয়ে প্রপার্টি ক্রয় বা শপ এড করার জন্য মানুষকে কনভেন্স করা।

যোগ্যতা : ১) পূর্ব যোগ্যতা থাকতে হবে না, তবে হাসি মুখ ও স্মার্ট হতে হবে।২) মানুষকে কনভেন্স করার যোগ্যতা থাকতে হবে ৩) সোশ্যাল মিডিয়ায় অনলাইন প্রচার/প্যাকেজিং/ডেলিভারী কাজ করার জন্য যোগ্যতা ও প্রস্তুত থাকতে হবে। এটা অফিসিয়াল জব নয়। কন্টাক জব। বেতন কর্তন সাপেক্ষে ছুটি বা তাবলিগে লম্বা সফর করা যাবে।

চাকরী করার জন্য নিজের যা যা থাকতে হবে : ছবি ও বৈধ কাগজপত্রসহ যা লাগবে সাথে ২ জিবি রেমের মত স্মার্ট মোবাইল এবং সততা-আন্তরিকতা ও কাজের চরম গতিবেগ ।

১ম টার্গেট :- প্রতি মাসে ২০জন উপযুক্ত ও রিয়েল ক্রেতাকে আমাদের কোম্পানীর কোন জমি বা প্লট অথবা ফ্ল্যাট বিক্রয়ে জন্য রাজি করিয়ে সাইট ভিজিট করাতে হবে।

২য় টার্গেট :- প্রতিমাসে ২০টি মহল্লায় ১০টি ক্যাটাগরীর মোট ২০০ দোকান মালিককে ফরম পূরন করিয়ে ওয়ালীবাজার.কমের সাথে ব্যবসা করতে রাজি করাতে হবে।

৩য় টার্গেট :- প্রতিমাসে ২০টি মহল্লায় ২০ জন করে ৪০০ জনকে ওয়ালীবাজারে ক্রয়ের জন্য সাইনআপ ও লগইন করিয়ে অর্ডার করা শিখানো ।

বেতন-ভাড়া ও কমিশন-বকশিশ সমূহঃ

ক) মাসিক বেতন ৭৫০০+ ২৫ দিনের ভাড়া বাবদ= ২৫০০ মোট = ১০,০০০ টাকা প্রদান করা হয়। এটা অফিসিয়াল চাকরী নয়, তবে তিনটি টার্গেট পূরন করে মাসে মোট সর্বনিম্ন = ১৪,৮০০/- টাকা নিমিশে আয় করতে পারেন। মাসে ২৫ দিন অবশ্যই ৮ ঘন্টা করে ডিউটি করতে হবে।

খ) আমাদের কোম্পানীর কোন জমি বা প্লট অথবা ফ্ল্যাট বিক্রয়ে জন্য রাজি করিয়ে সাইট ভিজিট করাতে পারলে ১০০ টাকা বকশিশ পাবেন, যদি ভিজিটের ৩০ দিনের মধ্যে সে ১টা জমি বা প্লট অথবা ফ্ল্যাট ক্রয় করেন, তবে আপনি পাবেন ১০,০০০/- টাকা কমিশন বকশিশ। কমপক্ষে ২০জন প্রকৃত ক্রেতাকে ভিজিট করালে পাবেন ২,০০০ টাকা।এটা মাসিক টার্গেটও বটে।

গ) প্রতিমাসে ২০০ দোকান মালিককে ফরম পূরন করিয়ে ওয়ালীবাজার.কমের সাথে ব্যবসা করতে রাজি করাতে পারলে পাবেন ২০০০ টাকা কমিশন। এটা মাসিক টার্গেটও বটে।

ঘ) প্রতিমাসে ৪০০ জনকে ওয়ালীবাজারে ক্রয়ের জন্য সাইনআপ ও লগইন করিয়ে অর্ডার করা শিখালে পাবেন ৮০০ টাকা। এটা মাসিক টার্গেটও বটে।

আপনার মাসিক আয়ঃ কোন জমি বা প্লট অথবা ফ্ল্যাট বিক্রয় করতে না পারলেও উপরের তিনটি টার্গেট পূরন করে মাসে মোট সর্বনিম্ন = ১৪,৮০০/- টাকা নিমিশে আয় করতে পারেন। টার্গেট এর বেশি কাজ করলে বেশি আয় হবে। তবে অনলাইন ব্যবহার করে বা অন্যকে দিয়ে এ কাজ করানো যাবে না। পুনরায় বলছি, এ কাজের যোগ্যতা হল পরিষ্কার পরিছন্ন হয়ে নবাবী ভাব নিয়ে বেহায়া হয়ে মানুষের সাথে হাসি মুখে কথা বলে লক্ষ্য অর্জনে কনভেন্স করার চেষ্টা থাকতে হবে। এটা পারলে জমি বিক্রয় ও শপ এড দুটাই করে মাসে ১২০০০-৩৫০০০ টাকা আয় করতে পারবেন।

ডিউটি টাইম, ছুটি ও শর্ত সমূহ ঃ সাপ্তাহিক ছুটি শুক্রবার। মাসে যে কোন ২৫ দিন সকাল ৯ হতে সন্ধ্যা পর্যন্ত দৈনিক (লাঞ্চ ও নামাজ ব্যতিত) ৮ ঘন্টা ডিউটি করতে হবে। তবে বিকেলে আর অফিসে ফিরতে হবে না। প্রতিদিন সকাল ৯ টায় একবার হাজির হয়ে রিপোর্ট দিতে হবে। তবে উপরের সাপ্তাহিক টার্গেট পূরন করতে না পারলে, চার সপ্তাহ সুযোগ দেয়া হবে। ৪র্থ সপ্তাহেও টার্গেট পূরন করতে না পারলে, পরের মাসে বিদায় নিতে হবে। অর্থ্যাত পরের মাসে আর চাকরী থাকবে না। মোট কথা, এই চাকুরীর মেয়াদ এক মাস। টাগের্ট পুরণ করতে পারলে পরের মাসে কাজ করার সুযোগ পাবেন। ঈদ বোনাসসহ অফিসিয়াল আর কোন সুবিধা বঞ্চিত থাকবেন। তবে এক বছর ভাল কাজ দেখাতে পারলে অফিসিয়াল জব পেতে পারেন।

ট্রেনিং সপ্তাহ: এক সপ্তাহ বা ৬দিন ট্রেনিং দিয়ে মার্কেটিং কাজে একটি মহল্লায় পাঠানো হবে। প্রতিদিন একশত টাকা টিএডিএ দেয়া হবে।২য় সপ্তাহে, টার্গেট পূর্ণ করতে পারলে বেতন ও সেল কমিশনসহ চাকুরীর নিয়োগপত্র প্রদান করা হবে। ভাল কাজ ও ফলাফল দেখাতে পারলে, প্রতি বছর বেতন বৃদ্ধিসহ প্রমোশন দেয়া হবে ।

কিভাবে চাকুরীর আবেদন করতে হবে? 

অবশ্যই http://bit.ly/2FOn8Nd লিংকের বা নীচের ফরম পূরন করার পর, এক্সেপ্ট হলে, কল করে কথা বলে, ডাকা হবে। 

মন্তব্য করুন
google pagerank checker by smallseotools.com